>> জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ৩০ ডিসেম্বর : শিক্ষামন্ত্রী >> ইয়েমেনের রাজধানী সানায় আবার সৌদি বিমান হামলা নিহত ৩ >> হবিগঞ্জে ট্রাক-পিকআপ সংঘর্ষে ২ জন নিহত

বিদেশে অর্থ পাচারের প্রমাণ আছে বলেই প্রধানমন্ত্রী বলেছেন : কাদের

নিউজডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

Obaidul-Quader 5সৌদি আরবসহ ১২টি দেশে জিয়া পরিবার বিভিন্ন সময়ে ১২ বিলিয়ন ডলার পাচার করে বিনিয়োগ করেছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘তথ্য-প্রমাণ আছে বলেই প্রধানমন্ত্রী জিয়া পরিবারের দুর্নীতির বিষয়ে কথা বলেছেন। এসব দেশে আবাসন, পেট্রো কেমিকেলসহ বিভিন্ন খাতে তারেক রহমান, সাঈদ ইস্কান্দার এবং তাদের ব্যবসায়ী বন্ধুরা বিনিয়োগ করেছেন।’

গত বৃহস্পতিবার গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিক নেতা মনজুরুল আহসান বুলবুল প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন রাখতে গিয়ে বলেন, ‘খালেদা জিয়া আদালতে জানিয়েছেন যে তিনি শেখ হাসিনাকে ক্ষমা করেছেন। অথচ সম্প্রতি সৌদি আরবে টাকা পাচারের সঙ্গে খালেদা জিয়ার সম্পৃক্ততা বিষয়ে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খবর এসেছে। এ ক্ষেত্রে সরকার কি তাঁকে ক্ষমা করবে?’

এই প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি-জামায়াত সরকারের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের কথা তুলে ধরেন। এ সময় দেশের গণমাধ্যমের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘কেন এই টাকা পাচারের খবর তুলে ধরা হলো না?’ তিনি বলেন, ‘সৌদিতে যে বিশাল শপিংমল, সম্পদ পাওয়া গেছে, আপনাদের (সাংবাদিকদের) তো এ ব্যাপারে কোনো আগ্রহ দেখি না। এত দুর্বলতা কিসের জন্য? এই যে মানি লন্ডারিং, এটা যে বিএনপি এবং খালেদা জিয়ার ছেলেরা করেছে এটা তো আমরা বের করিনি। এটা বের করেছে আমেরিকা।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘বেশির ভাগ পত্রিকা কিন্তু আমিই পারমিশন দিয়েছি। সে পত্রিকাগুলোর এতটুকু সাহস হলো না যে খবরটা প্রকাশ করি। কোন সরকার সাহস পায় নাই, আমি প্রাইভেট চ্যানেলের অনুমোদন দিয়েছি।’

এরপর এর প্রতিক্রিয়ায় শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে এই বক্তব্য প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে বলেন, যদি বক্তব্য প্রত্যাহার না করা হয় তাহলে বিএনপি এর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবে।

এর পরই শনিবার সকালে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে ফের এ প্রসঙ্গ টেনে জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

ওবায়দুল কাদের আরো জানান, জিয়া পরিবারের এসব দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে খোঁজখবর নেওয়া শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

পদ্মাসেতু ও মোট্রোরেল প্রকল্পে যে দুর্নীতির অভিযোগ বিএনপি করছে, তার প্রমাণ অবশ্যই জাতির সামনে তাদের দিতে হবে বলে উল্লেখ করেন কাদের।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, ০৯.১২.২০১৭


Comments are closed.