>> বরগুণায় সাগরে ট্রলার ডুবি ৪ জেলে উদ্ধার ৪ জন নিখোঁজ >> টেষ্ট অধিনায়কত্ব হারালেন মুশফিকুর রহিম >> নতুন টেষ্ট অধিনায়ক সাকিব আল-হাসান সহ-অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ

দাপুটে জয় দিয়ে অ্যাশেজ শুরু করলো অষ্ট্রেলিয়া

নিউজডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

Steve Smithব্রিজবেনে অ্যাশেজ সিরিজের প্রথম টেস্টে সফরকারী ইংল্যান্ডকে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারালো স্বাগতিক অষ্ট্রেলিয়া। ফলে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল স্টিভেন স্মিথের দল। এই নিয়ে সপ্তমবারের মত অ্যাশেজে ইংল্যান্ডকে ১০ উইকেটে ব্যবধানে হারালো অসিরা। সর্বশেষ ২০০৬-০৭ সালে ইংলিশদের বিপক্ষে এমন ব্যবধানে জিতেছিলো অসিরা। এই ভেন্যুতে দ্বিতীয়বারের মত ইংলিশদের বিপক্ষে উইকেটের হিসেবে বড় ব্যবধানে জিতলো অষ্ট্রেলিয়া।

আগের দিন অর্থাৎ চতুর্থ দিন শেষে জয়ের মঞ্চ তৈরি করে ফেলেছিলো অষ্ট্রেলিয়া। ইংল্যান্ডের ছুঁড়ে দেয়া ১৭০ রানের টার্গেটে দিন শেষে বিনা উইকেটে ১১৪ রান তুলেছিলেন অসিরদের দুই ওপেনার ক্যামেরন বেনক্রফট ও ডেভিড ওয়ার্নার। তাই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ব্রিজবেন টেস্ট জয়ের জন্য পঞ্চম ও শেষ দিনে ১০ উইকেট হাতে নিয়ে ৫৬ রান দরকার পড়ে স্বাগতিকদের।

পঞ্চম দিন প্রয়োজনীয় ৫৬ রান তুলতে ১৬ ওভার লেগেছে বেনক্রফট ও ওয়ার্নারের। ইংল্যান্ড বোলারদের বিপক্ষে দেখে-শুনে খেলে সহজেই অষ্ট্রেলিয়ার জয় নিশ্চিত করেন বেনক্রফট ও ওয়ার্নার। ৫১ রান নিয়ে দিন শুরু করে ১০টি চার ও ১টি ছক্কায় অপরাজিত ৮২ রান করেন অভিষেক ম্যাচ খেলতে নামা বেনক্রফট। প্রথম ইনিংসে ৫ রান করেছিলেন তিনি। তবে অষ্ট্রেলিয়ার হয়ে অভিষেক ম্যাচে চতুর্থ ইনিংসে ৮২ রানের ইনিংসে রেকর্ড গড়েছেন বেনক্রফট। ১৯৫৮ সালে সর্বশেষ অসিদের হয়ে অভিষেক ম্যাচের চতুর্থ ইনিংসে ৭১ রান করেছিলেন র্নম ও’নিল।

অপরপ্রান্তে ৬০ রান নিয়ে শুরু করে ১০টি বাউন্ডারিতে ১১৯ বল মোকাবেলায় ৮৭ রানে অপরাজিত থাকেন ওয়ার্নার। বেনক্রফটের সাথে উদ্বোধনী জুটিতে অবিচ্ছিন্ন ১৭৩ রান যোগ করেন ওয়ার্নার। ফলে ৮৭ বছরের পুরনো রেকর্ড ভেঙ্গে বিশ্বরেকর্ড গড়েন তারা। ১৯৩০ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বশেষ রান চেজে অবিচ্ছিন্ন ১৭২ রান করেছিলেন অসিদেরই আর্চ জ্যাকসন ও বিল পনসফোর্ড।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এমন জয়ে এই ভেন্যুতে টানা ২৯ টেস্ট অপরাজিত থাকলো অষ্ট্রেলিয়া। ১৯৮৮-৮৯ সালে সর্বশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ৯ উইকেটে হেরেছিলো অসিরা। এরপর এখানে ২২টি টেস্টে জয় ও ৭টিতে ড্র’র স্বাদ নেয় অষ্ট্রেলিয়া। এখানে ইংল্যান্ডের কাছে অষ্ট্রেলিয়ার সর্বশেষ হার ১৯৮৬ সালে। তাই ইংলিশদের বিপক্ষে অপরাজিত থাকার রেকর্ডও ধরে রাখলো অসিরা।

প্রথম ইনিংসে অপরাজিত ১৪১ রানের সুবাদে ম্যাচ সেরা হয়েছেন অষ্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। আগামী ২ ডিসেম্বর থেকে অ্যাডিলেড ওভালে শুরু হবে অ্যাশেজ সিরিজের দ্বিতীয় টেষ্ট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ইংল্যান্ড
৩০২ ও ১৯৫, ৭১.৪ ওভার (রুট ৫১, বেয়ারস্টো ৪২, হ্যাজেলউড ৩/৪৬)।

অষ্ট্রেলিয়া
৩২৮ ও ১৭৩/০, ৫০ ওভার (ওয়ার্নার ৮৭*, বেনক্রফট ৮২*)।

ফল : অষ্ট্রেলিয়া ১০ উইকেটে জয়ী।
সিরিজ : পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল অষ্ট্রেলিয়া।
ম্যাচ সেরা : স্টিভেন স্মিথ (অষ্ট্রেলিয়া)।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, ২৭.১১.২০১৭


Comments are closed.