>> ইরাক ও সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় নিহত আরও ৬১

ভারতে দার্জিলিং শান্ত হচ্ছে না গুরুঙ্গপন্থীদের মিছিল

নিউজডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

Bimal Gurung১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বন্‌ধ তুলে নেওয়া হবে। নবান্নে সর্বদলীয় বৈঠকের পর পাহাড়ে এসে এ কথা জানিয়েছিলেন মোর্চার চিফ কো-অর্ডিনেটর বিনয় তামাঙ্গ। কিন্তু তাঁর সেই ঘোষণাকে কার্যত আমল না দিয়েই পাহাড়ে বন্‌ধ পালিত হচ্ছে। দোকানপাট বেশির ভাগই বন্ধ। এত দিন বন্‌ধ চললেও কিছু যান চলাচল করছিল। দোকানপাটও ধীরে ধীরে খুলছিল। কিন্তু শুক্রবার সকাল থেকেই চিত্রটা একেবারে বদলে গিয়েছে। বেশির ভাগ দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। রাস্তাঘাটও শুনশান।

বন্‌ধ প্রত্যাহারের বিরোধিতা করে এ দিন সকাল থেকেই ময়দানে নেমে পড়েছে গুরুঙ্গপন্থীরা। শুক্রবার সকালে থেকেই কার্শিয়াঙের বিভিন্ন জায়গায় গুরুঙ্গ সমর্থকরা বিনয়ের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রাস্তায় নামে। গুরুঙ্গ সমর্থকরা সোনাদা, রংবুল এবং কার্শিয়াঙের বিভিন্ন জায়গায় মিছিল করে। দার্জিলিং এও মিছিল নিয়ে বেরিয়েছে গুরুঙ্গ সমর্থকরা।

বিমল গুরুঙ্গ আগেই জানিয়েছিলেন বন‌্ধ প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে তিনি কোন ভাবেই মেনে নেবেন না। হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন বন্‌ধ যেমন চলছে তেমনই চলবে। বন্‌ধ তুলতে গেলে ফল ভাল হবে না সে কথা স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছিলেন। পাশাপাশি, বিনয়কে চিফ কো-অর্ডিনেটরের পদ থেকেও সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন গুরুঙ্গ।

দার্জিলিং নিয়ে জটিলতা চলছে অনেক দিন ধরেই। সে জটিলতা কাটাতে নবান্নে সর্বদলীয় বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। সেখানে হাজির ছিলেন মোর্চার চিফ কো-অর্ডিনেটর বিনয় তামাঙ্গ-সহ একটি প্রতিনিধি দল। বৈঠকে স্থির হয়, ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আপাতত বন্‌ধ তুলে নেবে মোর্চা। কিন্তু বিনয়ের এই সিদ্ধান্তকে ঘিরেই শুরু হয়ে যায় মোর্চার অন্তর্কোন্দল। বিনয়ের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মাঠে নামেন গুরুঙ্গ।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, ০১.০৯.২০১৭


Comments are closed.