>> ইরাক ও সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় নিহত আরও ৬১

ভারতে কিশোর ছাত্রকে যৌন হেনস্থা স্কুলের অধ্যক্ষা সাসপেন্ড

নিউজডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

Woman sexually abuse boy‘সভ্যতার সূতিকাগার’ ভারতের পাতিয়ালায় একটি স্কুলের অধ্যক্ষা ক্লাস শেষ হওয়ার পর দ্বাদশ শ্রেণির কিশোর ছাত্রকে নিজের অফিসে ডেকে নিয়ে যেতেন, পাশে বসিয়ে রাখতেন। কখনও কখনও নিজের বাড়িতেও নিয়ে যেতেন। শুধু তাই নয়, ছাত্রটিকে তাঁর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতেও বাধ্য করতেন। ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসার পর অধ্যক্ষাকে সাসপেন্ড করেছে রাজ্য শিক্ষা দফতর।

পঞ্জাবের পাতিয়ালার মর্দানপুরের একটি সরকারি স্কুলে পড়ে ছাত্রটি। অভিযোগ, প্রায় দিনই স্কুলের অধ্যক্ষা ছাত্রটিকে শারীরিক ভাবে নিগ্রহ করতেন। এক দিন ছাত্রটি প্রতিবাদ করায় স্কুল থেকে তার নাম কেটে দেন অধ্যক্ষা। তখন ছাত্র অধ্যক্ষা কর্তৃক যৌন হেনস্থার অভিযোগটি প্রকাশ করে। তার পরই শুরু হয় হৈ চৈ। ছাত্রটির অভিভাবক এবং অন্য অভিভাবকরা স্কুল ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে। তারা অধ্যক্ষার শাস্তির দাবি করে। তাদের অভিযোগ অভিযোগ, অধ্যক্ষা অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে এই কর্মকাণ্ড চালাতেন।

বিষয়টি রাজ্য শিক্ষা দফতর পর্যন্ত পৌঁছালে রাজ্যের শিক্ষা সচিব কৃষ্ণ কুমার অধ্যক্ষাকে সাসপেন্ডের নির্দেশ দেন। তিনি জানান, অভিভাবক, ছাত্র, স্কুলের শিক্ষক এবং অন্য কর্মচারীদের বক্তব্য শুরে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তবে অধ্যক্ষার বিরুদ্ধে অভিযোগ এই প্রথম নয়, এর আগেও তাঁর বিরুদ্ধে ছাত্রদের যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠেছিল। তবে সে সসমস্ত ঘটনায় তাঁর বিরুদ্ধে কোন শাস্তিমূলক পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। অভিযোগ ছিল ‘রাজনৈতিক যোগাযোগ’ থাকার কারণেই নাকি অধ্যক্ষার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে এ বারের ঘটনায় তাঁকে রেহাই দেয়নি রাজ্য শিক্ষা দফতর।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, ০৬.০৮.২০১৭


Comments are closed.