>> ইরাক ও সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় নিহত আরও ৬১

প্রেসিডেন্ট প্রার্থী নিয়ে বিজেপির লুকোচুরি বিরোধীদের পছন্দ হ’ল না

নিউজডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

Sonia Gandhi 3ভারতের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে আপাতত সরকার পক্ষের সঙ্গে বিরোধীদের ঐক্যমত্যের প্রশ্ন আসছে না। শুক্রবার কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বিজেপি’র সিনিয়র নেতা ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং বেঙ্কইয়া নাইডুর মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে কথা হয়। উভয়পক্ষের মধ্যে প্রায় ৩০ মিনিট ধরে কথাবার্তা হলেও প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর নাম প্রকাশ্যে না আসায় আলোচনা কোন সুনির্দিষ্ট পরিণতি লাভ করে নি।

সরকার পক্ষের সঙ্গে বিরোধীনেত্রীর কথা হওয়ার সময় কংগ্রেসের সিনিয়র নেতা গুলাম নবী আজাদ এবং মল্লিকার্জুন খাড়্গে উপস্থিত ছিলেন। বৈঠক শেষে গুলামনবী আজাদ ও মল্লিকার্জুন খাড়্গে গণমাধ্যমকে বলেন, বিজেপি নেতারা প্রেসিডেন্ট প্রার্থী নিয়ে কারো নাম প্রস্তাব করেননি। তারা কংগ্রেসের কাছে প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর নাম জানতে চেয়েছে। সরকার পক্ষের থেকে যখন কোন নামই প্রকাশ্যে আসেনি তখন সর্বসম্মতি কীভাবে সম্ভব?

গুলাম নবী আজাদ বলেন, তাদের আশা ছিল, বিজেপি কোনো প্রার্থীর নাম জানাবে। সেই নাম নিয়ে তারপর তারা অন্য রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনা করে ঠিক করবেন সর্বসম্মতি দেয়া হবে কি না। কিন্তু বিজেপি এখনো যেহেতু কোন নাম বলেনি তাই সর্বসম্মতির প্রশ্নও নেই।

Azad and Khargeমল্লিকার্জুন খাড়গে বলেন, ‘আমার মনে হচ্ছে বিজেপির মনে অন্য কিছু ঠিক আছে। তাই ওরা কেবল সহযোগিতা চাচ্ছেন। ‌এখনও কোন নামই সামনে আনেনি বিজেপি। তাই সর্বসম্মতির প্রশ্নই উঠছে না।’

সরকার পক্ষের বিভিন্ন সূত্রে ওই পদের জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের পাশাপাশি সামাজিক ন্যায় মন্ত্রী থাওরচাঁদ গেহলট, লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মহাজন এবং ঝাড়খণ্ডের গভর্নর দ্রৌপদি মুর্মু’র নাম শোনা যাচ্ছে। কিন্তু শেষ সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিই গ্রহণ করবেন।

আরজেডি প্রধান ও বিহারের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব টিপ্পনী কেটে বলেছেন, প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর নাম প্রধানমন্ত্রীর পেটের মধ্যে আছে। বাকি সব চোখে ধুলো দেয়ার মত বিষয়।
আগামী ১৭ জুলাই প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ ২৮ জুন। ফল ঘোষণা হবে ২০ জুলাই।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, ১৬.০৬.২০১৭


Comments are closed.