>> কোথাও কোথাও মাঝারি ধরণের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে >> স্পেনের বার্সেলোনায় পথচারীদের উপর ভ্যান নিহত ১৩ আহত ৫০ >> সিরিয়ায় মার্কিন জোটের বিমান হামলায় ৬ বেসামরিক ব্যক্তি নিহত

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সোমবার মুখোমুখি হচ্ছে শ্রীলংকা-পাকিস্তান

নিউজডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

Pakistan and Sri Lankaআইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ‘বি’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে আগামীকাল মুখোমুখি হচ্ছে শ্রীলংকা ও পাকিস্তান। ‘বি’ গ্রুপ তো বটেই, এবারের আসরে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ এটি। তবে পয়েন্ট তালিকার সমীকরনে এই ম্যাচটিও রূপ নিয়েছে কোয়ার্টারফাইনালে। কারন শ্রীলংকা-পাকিস্তান ম্যাচের বিজয়ী দল খেলবে এবারের আসরের সেমিফাইনালে। তাই সেমির টিকিট নিশ্চিত করার ম্যাচে আগামীকাল কার্ডিফে মুখোমুখি হচ্ছে দু’দল। খেলা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে তিনটায়।

‘বি’ গ্রুপে ফেভারিটের তকমাটা ছিলো না শ্রীলংকা ও পাকিস্তানের। সেটি আরও বেশি প্রমাণিত হয়, নিজেদের প্রথম ম্যাচে দু’দলই হেরে যাওয়ায়। বিশ্বের এক নম্বর দল দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হেরে টুর্নামেন্ট শুরু করে শ্রীলংকা। আর চিরপ্রতিন্দ্বন্দি ভারতের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট শুরু করতে হয় পাকিস্তানকে।

তবে নিজেদের পরের ম্যাচেই দারুনভাবে ঘুড়ে দাড়ায় শ্রীলংকা ও পাকিস্তান। দুর্দান্ত ব্যাটিং নৈপুন্যে হট ফেভারিট ভারতকে হারিয়ে দেয় লংকানরা। এতে জমে উঠে গ্রুপ পর্বের লড়াই। কারন ভারত-শ্রীলংকার ম্যাচের আগের দিন বার্মিংহামে দক্ষিণ আফ্রিকাকে বৃষ্টি আইনে হারায় পাকিস্তান। ফলে এই গ্রুপে চার দলের পয়েন্টই হয় সমান ২ করে। তাই এই গ্রুপের তৃতীয় ও শেষ রাউন্ডের ম্যাচগুলো রুপ নেয় কোয়ার্টারফাইনালে। শেষ রাউন্ডের ম্যাচের বিজয়ী দলই খেলবে সেমিতে।

তাই পাকিস্তানের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ রাউন্ডের ম্যাচটি জিততে চান শ্রীলংকার উইকেটরক্ষক নিরোশান ডিকবেলা, ‘সেমিফাইনালে খেলার দারুন এক সুযোগ আমাদের সামনে। সুযোগটি কাজে লাগাতে হলে এ ম্যাচে জয় ছাড়া অন্য কোন উপায় নেই। তাই সুযোগটি কাজে লাগাতে চাই আমরা। আমরা সেমিতে খেলতে চাই। পাকিস্তান ভারসাম্যপূর্ণ দল। তাদেরকে হারানো সহজ হবে না, তবে অসম্ভব কিছু না। ভারতের বিপক্ষে দারুন এক জয় পেয়ে আমরা এখন অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী। । এই জয়কে পুঁিজ করেই পাকিস্তানকেও হারাতে চাই।’

ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামার আগে দল ভয় পেয়েছিলো, এমন মন্তব্য করেন পাকিস্তানের কোচ মিকি আর্থার। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচের আগে অন্য এক পাকিস্তানকে দেখা যাবে বলে জানিয়েছিলেন তিনি। তাই শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচের আগেও অন্য পাকিস্তানকে দেখতে চান আর্থার, ‘ভারতের বিপক্ষে ড্রেসিংরুমে জয়ের আবহ দেখিনি । তবে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ম্যাচের আগে দলকে বেশ চাঙ্গা দেখেছি। আমরা বিশ্বাস করি, ভালো খেলার সামর্থ্য আমার দলের আছে। দলের খেলোয়াড়দের সাথে আমি কথা বলেছি। তাদেরকে চাপ না নিয়ে খেলতে বলেছি। সাধারণ একটি ম্যাচের মতই এটিকে ভাবতে বলেছি এবং সেরা পারফরমেন্সটাই দিতে বলেছি।’

শ্রীলংকা স্কোয়াড
অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ (অধিনায়ক), উপুল থারাঙ্গা (সহ-অধিনায়ক), দিনেশ চান্ডিমাল, ধনানঞ্জয়া ডি সিলভা, নিরোশান ডিকবেলা (উইকেটরক্ষক), নুয়ান প্রদীপ, আসলে গুনারত্নে, ধানুষ্কা গুনাথিলাকা, নুয়ান কুলাসেকেরা, সুরাঙ্গা লাকমল, লাসিথ মালিঙ্গা, কুশল মেন্ডিস, থিসারা পেরেরা, সেক্কুগে প্রসন্ন ও লক্ষণ সান্দাকান।

পাকিস্তান স্কোয়াড
সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), আহমেদ শেহজাদ, আজহার আলী, মোহাম্মদ হাফিজ, বাবর আজম, শোয়েব মালিক, হারিস সোহেল, ইমাদ ওয়াসিম, ফকর জামান, ফাহিম আশরাফ, মোহাম্মদ আমির, ওয়াহাব রিয়াজ, জুনায়েদ খান, হাসান আলী ও শাহদাব খান।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, ১১.০৬.২০১৭


Comments are closed.