>> দেশের বিভিন্ন স্থানে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে >> রংপুর পীরগঞ্জে ট্রাক উল্টে ঈদে ঘরমূখী ১৭ জন নিহত >> চীনের সিচুয়ান প্রদেশে জিনমো গ্রামে ভূমি ধ্বসে ১০০ মানুষ নিঁখোজ >> পাকিস্তানের পারাচিনারে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫৭ >> টাঙ্গাইলে বাস-ট্রাকের মুখোমুখী সংঘর্ষে ৪ জন নিহত

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার দাপুটে জয়

নিউজডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

Champions Trophy Sri Lanka vs India 1আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ‘বি’ গ্রুপের লড়াই জমিয়ে দিল শ্রীলঙ্কা। এই গ্রুপের চারটি দলের দু’টি করে খেলা শেষে সবার ঘরেই যোগ হয়েছে দুই পয়েন্ট। এই গ্রুপের শেষ দুটি ম্যাচের জয়ী দল পেয়ে যাবে সেমিফাইনালের টিকিট। নিজেদের শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কা খেলবে পাকিস্তানের বিপক্ষে। আর অপর ম্যাচে মুখোমুখি হবে ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা।

ওভালে আগে ব্যাট করে শ্রীলঙ্কাকে ৩২২ রানের টার্গেট ছুঁড়ে দেয় টিম ইন্ডিয়া। শিখর ধাওয়ানের সেঞ্চুরি, রোহিত শর্মা আর মহেন্দ্র সিং ধোনির দারুণ হাফ-সেঞ্চুরিতে ৬ উইকেট হারিয়ে চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে ভারত। ৩২২ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ৮ বল আর ৭ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় লঙ্কানরা।

লঙ্কান ওপেনার নিরোশান ডিকওয়েলা ৭ রানে সাজঘরে ফেরেন। এরপর ১৫৯ রানের দারুণ এক জুটি গড়েন গুনাথিলাকা আর কুশল মেন্ডিস। দুই সেট ব্যাটসম্যানই রান আউটের শিকার হন। গুনাথিলাকা ৭২ বলে করেন ৭৬ রান। আর মেন্ডিস ৯৩ বলে করেন ৮৯ রান। চার নম্বরে নামা কুশল পেরেরা ব্যক্তিগত ৪৭ রানে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে ফেরেন। অধিনায়ক ম্যাথিউজ আর গুনারত্নে ৫১ রানের জুটি গড়ে জয় নিশ্চিত করেন। অনেকদিন পর দলে ফেরা ম্যাথিউজ ৪৫ বলে করেন অপরাজিত ৫২ রান। আর গুনারত্নে ২১ বলে করেন অপরাজিত ৩৪ রান।

এর আগে ১৩৮ রানের অবিচ্ছিন্ন উদ্বোধনী জুটি গড়ে ভারতকে ভালো সূচনা এনে দিয়েছেন শিখর ধাওয়ান ও রোহিত শর্মা। ২৫তম ওভারে এই জুটি ভেঙে লঙ্কান শিবিরে স্বস্তি ফিরিয়েছেন লাসিথ মালিঙ্গা। ৭৯ বলে ৬টি চার আর ৩টি ছক্কায় ৭৮ রান করে বিদায় নেন রোহিত। ১২৮ বলে ১৫টি চারের পাশাপাশি একটি ছক্কা হাঁকিয়ে ১২৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন ধাওয়ান। এরপর অধিনায়ক বিরাট কোহলি ০ রানে আউট হন।

যুবরাজ সিং করেন ৭ রান। মহেন্দ্র সিং ধোনির ব্যাট থেকে আসে ৬৩ রান। ৫২ বলে ৭টি চার আর দু’টি ছক্কায় ধোনি তার ইনিংস সাজান। হারদিক পান্ডে ৯ রানে সাজঘরে ফেরেন। শেষ দিকে কেদার যাদব ১৩ বলে করেন অপরাজিত ২৫ রান।

লঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গা দু’টি উইকেট দখল করেন। একটি করে উইকেট নেন লাকমল, প্রদীপ, পেরেরা আর গুনারত্নে।

৯৩ বলে ৮৯ রান করায় ম্যাচ সেরার পুরস্কার পান কুশল মেন্ডিস।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, ০৯.০৬.২০১৭


Comments are closed.