>> কুমিল্লা বিক্টোরিয়ান্সকে হারিয়ে রংপুর রাইডার্স বিপিএল ফাইনালে >> হবিগঞ্জে ৫ জেএমবি সদস্য আটক

ইরানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে ক্ষতি নেই : লেবাননের প্রেসিডেন্ট

নিউজডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

michel aounলেবাননের প্রেসিডেন্ট মিশেল আওন সৌদি আরব সফর শেষে বলেছেন, ইরানের সঙ্গে তার দেশের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক আরব দেশগুলোর সঙ্গে বৈরুতের সম্পর্ক স্থাপনের পথে অন্তরায় হবে না।

আওনের এ বক্তব্য বুধবার সৌদি দৈনিক আশ-শারকুল আওসাত পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে, যেখানে তিনি এও বলেছেন যে, “ইরানের সঙ্গে আমাদের স্বাভাবিক সম্পর্ক রয়েছে যা আরব বিশ্বের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের পথে বাধা হয়ে দাঁড়াবে না।”

প্রেসিডেন্ট আওন সোমবার সৌদি আরব সফরে যান। গত বছরের অক্টোবরে লেবাননের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর এটি ছিল আওনের প্রথম কোনো আরব দেশ সফর।

লেবাননের সংবিধান অনুযায়ী, একজন খ্রিস্টান রাজনৈতিক নেতা দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী মিশেল আওনের রাজনৈতিক দলের সঙ্গে লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। আওন রিয়াদ সফরকালে আরো বলেন, হিজবুল্লাহর প্রতি ইরানের অকুণ্ঠ সমর্থন অব্যাহত থাকবে।

রাজা আব্দুল্লাহ বিন আব্দুল আজিজের জীবদ্দশায় ২০১৩ সালে সৌদি আরব লেবাননের সেনাবাহিনীকে ৩০০ কোটি ও ১০০ কোটি ডলারের আলাদা দু’টি অর্থসাহায্য দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু গত বছরের মার্চ মাসে সে প্রতিশ্রুতি থেকে সরে আসে রিয়াদ।

সৌদি সরকারের ঘনিষ্ঠ সূত্রগুলো তখন জানিয়েছিল, লেবানন ‘সৌদি নীতির পরিপন্থি’ কাজ করায় এ ব্যবস্থা নিয়েছে রিয়াদ। সে সময় কায়রো এবং জেদ্দায় অনুষ্ঠিত আরব লীগের দু’টি বৈঠকের যৌথ বিবৃতিতে ইরান বিরোধী যে বক্তব্য দেয়া হয়েছিল বৈরুত তার প্রতি সমর্থন না জানানোয় অর্থসাহায্য বন্ধ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সৌদি আরব।

ওই ঘটনার কয়েক সপ্তাহ পর আরব লীগ লেবাননের হিজবুল্লাহকে ‘সন্ত্রাসী সংগঠন’ হিসেবে অভিহিত করে। সিরিয়ার যুদ্ধে হিজবুল্লাহ প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের পক্ষে যুদ্ধ করছে। অন্যদিকে সৌদি আরবসহ অন্যান্য আরব দেশ আসাদ বিরোধী বিদ্রোহী ও জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোকে সহযোগিতা করছে।।

মিশেল আওনের এবারের রিয়াদ সফরে বৈরুতকে সৌদি আরবের পক্ষ থেকে প্রতিশ্রুত অর্থসাহায্য দেয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, ১২.০১.২০১৬


Comments are closed.