>> এমপি লিটন হত্যা কাদের খানের ভাতিজাসহ ৩ জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি >> নরসিংদীতে ৩ ভাই-বোনকে গলা টিপে হত্যাকারী ভাই আটক

শিক্ষকহীন ও টেকনিশিয়ানহীন মেডিকেল কলেজ বন্ধ করে দেয়া হবে

nasim-5155স্বাস্থ্যডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে প্রতিষ্ঠিত যে সকল বেসরকারি মেডিকেল কলেজে চিকিৎসক, শিক্ষক এবং টেকনিশিয়ান নেই সে সকল প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হবে।

আজ শনিবার কমিল্লা মেডিক্যাল কলেজের রজতজয়ন্ত্রী উপলক্ষে আয়োজিত দুইদিন ব্যাপী অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. মুহসিনুজ্জামান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য হাজী আকম বাহাউদ্দিন বাহার, স্বাচিপের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডা: এম এ আজিজ, কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ ডা. মোসলেহউদ্দিন আহমেদ, বিএমএ কুমিল্লা শাখার প্রাক্তন সভাপতি ডা. গোলাম মহিউদ্দিন দীপু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে দেশের দারিদ্র বিমোচন নিরক্ষরতা দূরীকরণ এবং স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। দেশ অনেক এগিয়ে যাচ্ছে যা বহিবির্শ্বের নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধানগণ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করছেন।

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী। প্রধানমন্ত্রীর অধীনেই নির্বাচন হবে।

আপনারা নারায়াণগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর অধীনে থেকে নির্বাচনে অংশ নিতে পারলে জাতীয় নির্বাচনে কেন পারবেন না? রাষ্ট্রপতি ঠিক সময়ে সব দলের সাথে আলোচনা করে নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন।

২০১৯ সালের আগে নির্বাচন হবে না উল্লেখ করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আগামী নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ীই নির্ধারিত সময়ে হবে। সেইসঙ্গে সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই নির্বাচন হবে। এটা মীমাংসিত বিষয়। এটা নিয়ে কথা বলে রাজনৈতিক পরিস্থিতি ঘোলাটে করার পাঁয়তারা করছেন খালেদা জিয়া।

মেডিক্যাল কলেজকে ধূমপান মুক্ত রাখার আহবান জানিয়ে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ভালভাবে লেখাপড়া করে মেধাবী চিকিৎসক হয়ে দেশ ও সমাজের সেবায় নিজেদের আত্মনিয়োগ করতে হবে।

১৯৯২ সালে কুমিল্লা শহরতলির কুচাইতলিতে প্রতিষ্ঠিত কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজের ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত রজত জয়ন্তী অনুষ্ঠানে কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ শিক্ষক ছাত্র-ছাত্রীদের এক মিলন মেলায় পরিনত হয়েছ।

কলেজের প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিগত ২৮ বছরে কলেজে হতে ১২৯৫ জন শিক্ষার্থী চিকিৎসক হয়ে দেশবিদেশী চিকিৎসক সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন। কলেজের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ইতিমধ্যে ২৫০ জন পোষ্ট গ্র্যাজুয়েশন এবং কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ থেকে ১০ জন পোষ্ট গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি আজর্ন করেছেন।

পরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছয় মাস থেকে পাঁচ বছর বয়সী শিশুকে বিনামূল্যে ভিটামিন এ খাইয়ে ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন। জেলায় ৯ লাখ ৫৯ হাজার ৫৪৮ জন শিশুকে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়।
এ সময়ে সিভিল সার্জন ডা. মো. মজিবুর রহমান এবং ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মো. কামাল উদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, ১০.১২.২০১৬


Comments are closed.