>> জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানি গ্রেফতার ১ দিনের রিমাণ্ড মঞ্জুর >> পাপুয়া নিউ গিনিতে ৮ মাত্রার ভূমিকম্প : সুনামি সতর্কতা জারি >> মিয়ানমারে মিনিবাসে আগুন লেগে ৭ প্রকৌশলীসহ নিহত ৮ >> ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে রেল দুর্ঘটনায় ২৩ যাত্রী নিহত >> ইতালীর হিমবাহ ধ্বসে চাপা পড়া ১০ জনকে জীবিত উদ্ধার মৃত ৫ নিখোঁজ ১৫ >> সাভার আশুলিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুজন নিহত

বিশ্ব টেনিসের পুরুষ এককে একন নতুন ‘নাম্বার ওয়ান’ মারে

নিউজডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

murrayইনজুরির কারণে প্যারিস মাস্টার্স সেমিফাইনাল থেকে মিলোস রাওনিক নাম প্রত্যাহার করে নিলে বৃটিশ তারকা এন্ডি মারে বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের নতুন ‘নাম্বার ওয়ান’ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

সেমিফাইনালে ওয়াকওভার পাবার মধ্য দিয়ে ২৯ বছর বয়সী মারে প্রথমবারের মত শীর্ষস্থান দখল করলেন। আর এই লড়াইয়ে তিনি পিছনে ফেলেছেন ২২৩ সপ্তাহ যাবত টানা র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ স্থানটা দখল করে থাকা সার্বিয়ান তারকা নোভাক জকোভিচকে।

চলতি বছর দ্বিতীয়বারের মত উইম্বলডনের শিরোপা নিজের করে নেবার পাশাপাশি রিও অলিম্পিকে স্বর্ণ ধরে রাখতে দারুন সফল ছিলেন এই স্কটিশ। সে কারনেই এটিপি র‌্যাঙ্কিংয়ে খুব দ্রুতই তিনি উপরে উঠে আসেন। নতুন এই মাইলফলক অর্জনের পরে মারে বলেছেন, ‘আমি মনে করি এটা আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে সন্তোষজনক অর্জন। আমার চারপাশে যে সমস্ত খেলোয়াড়রা ছিল তারা এতটাই ভাল ছিল যে এই কৃতিত্ব অর্জণ সত্যিই খুব কঠিন ছিল। বিশেষ করে জকোভিচের কথা না বললেই না। অবশ্য আজকে যা ঘটেছে বা যেভাবে এটা অর্জিত হয়েছে তা দুঃখজনক। আমি কোর্টে এটা অর্জণ করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু এর পিছনে অনেক বছরের শ্রম রয়েছে। কখনই মনে করিনি বিশ্বের এক নম্বর স্থানটা কখনো আমার হবে। কখনই কল্পনাও করিনি এটা অর্জনের পরে কি কি ঘটবে।’

শেষ আটে মারিন সিলিচের কাছে পরাজিত হয়ে জকোভিচের বিদায়ের পরে শীর্ষস্থান দখলের জন্য মারের ফাইনালে যাওয়া জরুরী ছিল। কিন্তু ম্যাচ শুরুর মাত্র এক ঘন্টা আগে হঠাৎ করেই সংবাদ সম্মেলনে রাওনিক নাম প্রত্যাহারের ঘোষনা দিলে মারেকে কোর্টে নেমে একটি বলও খেলতে হয়নি। আগের ম্যাচেই ডান পায়ের পেশীতে টান লেগেছিল যা থেকে সুস্থ য়ে উঠতে পারেননি এই কানাডিয়ান।
রবিবারের ফাইনালে মারের প্রতিপক্ষ যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘদেহী খেলোয়াড় জন ইসনার। শুক্রবার কোয়ার্টার ফাইনালে জো-উইলফ্রেড সোঙ্গার বিপক্ষে ম্যাচে পায়ে আঘাত পাওয়া রাওনিক বলেন, সকালে ঘুম থেকে উঠেই আমি সমস্যা অনুভব করি। ঘন্টাখানেক আগে কিছু পরীক্ষাসহ এমআরআই করানো হয়েছে, সেখানেই কিছু সমস্যা ধরা পড়েছে।

সোমবার প্রকাশিতব্য নতুন র‌্যাঙ্কিং অনুযায়ী ইতিহাসের ২৬তম খেলোয়াড় হিসেবে মারের শীর্ষস্থান নিশ্চিত হয়েছে। ১৯৭৪ সালে অস্ট্রেলিয়ার জন নিউকম্বে ৩০ বছর বয়সে বিশ্বের এক নম্বর খেলোয়াড় হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। তারপরেই সবচেয়ে বেশী বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে মারে র‌্যাঙ্কিং বোর্ডের শীর্ষে নাম লেখালেন।

১২২ সপ্তাহ পরে নিজের মসনদ হারানো জকোভিচ নতুন নাম্বার ওয়ানকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেছেন, ‘সে অবশ্যই এমন একজন খেলোয়াড় যার এটা পাওনা ছিল। সে যা করেছে তার প্রশংসা করতেই হয়। গত এক বছরে সে নিজেকে যে উচ্চতায় নিয়ে গেছে তা সত্যিই অতি অসাধারণ।’

এদিকে প্রথম সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়ান মারিন সিলিচকে ৬-৪, ৬-৩ গেমের সরাসরি সেটে পরাজিত করে ফাইনাল নিশ্চিত করেছেন ইসনার। ২০১১ সালে সর্বশেষ ইসনার প্যারিস মাস্টার্সের শেষ চারে গিয়েছিলেন। ২০১২ সালে ইন্ডিয়ান ওয়েলস ও ২০১৩ সালে সিনসিনাটি মাস্টার্সের পরে এই প্রথম ইসনার মাস্টার্স ১০০০ শিরোপার জন্য ফাইনালে লড়বেন।

এটিপি নাম্বার ওয়ান খেলোয়াড় তালিকা

১৯৭৩ সালে এটিপি বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং চালু হবার পর থেকে এ পর্যন্ত ২৬জন খেলোয়াড় শীর্ষস্থান দখল করার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন।

এটিপি শীর্ষ খেলোয়াড়দের তালিকা

(দেশ, শীর্ষস্থানে ওঠার সাল, সর্বমোট শীর্ষস্থানে থাকার সপ্তাহ)
ইলি নাস্তাসে (রোমানিয়া, ১৯৭৩, ৪০ সপ্তাহ)
জন নিউকম্বে (অস্ট্রেলিয়া, ১৯৭৪, ৮)
জিমি কনর্স (যুক্তরাষ্ট্র, ১৯৭৪, ২৬৮)
বিওন বর্গ (সুইডেন, ১৯৭৭, ১০৯)
জন ম্যাকেনরো (যুক্তরাষ্ট্র, ১৯৮০, ১৭০)
ইভান লেন্ডল (চেক প্রজাতন্ত্র, ১৯৮৩, ২৭০)
ম্যাটস উইলান্ডার (সুইডেন, ১৯৮৮, ২০)
স্টিফেন এডবার্গ (সুইডেন, ১৯৯০, ৭২)
বরিস বেকার (জার্মানী, ১৯৯১, ১২)
জিম কুরিয়ার (যুক্তরাষ্ট্র, ১৯৯২, ৫৮)
পিট স্যাম্প্রাস (যুক্তরাষ্ট্র, ১৯৯৩, ২৮৬)
আন্দ্রে আগাসী (যুক্তরাষ্ট্র, ১৯৯৫, ১০১)
থমাস মুস্টার (অস্ট্রিয়া, ১৯৯৬, ৬)
মার্সেলো রিওস (চিলি, ১৯৯৮, ৬)
কার্লোস মোয়া (স্পেন, ১৯৯৯,২)
ইয়েভগেনি ক্যাফেলনিকভ (রাশিয়া, ১৯৯৯, ৬)
প্যাট্রিক রাফটার (অস্ট্রেলিয়া, ১৯৯৯, ১)
মারাত সাফিন (রাশিয়া, ২০০০, ৯)
গুস্তাভো কুয়ের্তেন (ব্রাজিল, ২০০০, ৪৩)
লেটন হিউয়েট (অস্ট্রেলিয়া, ২০০১, ৮০)
হুয়ান কার্লোস ফেরেরো (স্পেন, ২০০৩, ৮)
রজার ফেদেরার (সুইজারল্যান্ড, ২০০৪, ৩০২)
রাফায়েল নাদাল (স্পেন, ২০০৮, ১৪১)
নোভাক জকোভিচ (সার্বিয়া, ২০১১, ২২৩)
এন্ডি মারে (যুক্তরাজ্য, ২০১৬)

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, জের, ০৬.১১.২০১৬


Comments are closed.