>> ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ৬০ কিলোমিটার যানজট >> লিবিয়ায় জাহাজের কন্টেইনার থেকে ১৩ অভিবাসন প্রত্যাশীর লাশ উদ্ধার >> টাঙ্গাইল মির্জাপুরে গরু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

তিন তালাকের অবসান চান ভারতের ৯২ ভাগ মুসলিম নারী

নিউজডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

THree Talaqনা, আর তিন তালাকে সম্পর্ক ছিন্ন করা যাবে না। পুরুষ ঝেড়ে ফেলতে পারবে না দায়িত্ব। ভারতীয় মুসলিম নারী আন্দোলনের এই পিটিশনে ইতিমধ্যেই সই করেছেন ৫০,০০০ মুসলিম ধর্মাবলম্বী মানুষ। এর মধ্যে নারীরা যেমন রয়েছেন, তেমনই রয়েছেন পুরুষরাও।

দেশের মোট ৯২ শতাংশ মুসলিম নারী এই আন্দোলনকে সমর্থন করেছেন। ভারতীয় মুসলিম নারী আন্দোলনের সহ-প্রতিষ্ঠাতা জাকিয়া সোমান জানান, গুজরাট, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, কর্নাটক, তামিলনাড়ু, তেলেঙ্গানা, ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, ঝাড়খণ্ড, কেরালা ও উত্তরপ্রদেশে চলছে পিটিশনে সই গ্রহণ।

শুধু মুখে নয়, ইমেইল, ফোন এমন কি টেক্সট মেসেজের মাধ্যমেও ক্রমাগত বেড়ে চলেছে তিন তালাক দিয়ে মুসলিম বিবাহ সম্পর্ক শেষ করার প্রক্রিয়া রোধ করার। সেই সঙ্গেই আওয়াজ উঠছে প্রচলিত “নিকাহ হলাল” বা “হিল্লা বিয়ে”র প্রথাও শেষ করার। এই পদ্ধতি অনুযায়ী তালাকের পর, দ্বিতীয়বার স্বামী-স্ত্রী বিয়ে করার আগে নারীদের অন্য কোনও পুরুষকে, নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে হলেও, বিয়ে করতে হয়, যাকে “হিল্লা বিয়ে” বলা হয়। হিল্লা বিয়ে”র স্বামী যদি স্বেচ্ছায় তাকে তালাক প্রদান করে তবেই সে আবার আগের স্বামীকে বিয়ে করতে পারে। কিস্তু হিল্লা বিয়ের স্বামী স্ত্রীকে তালাক না দিলে স্ত্রীর কিছু করার নেই, অথবা তাকে সিভিল কোর্টে তালাকের আবেদন করতে হবে, যদি সে অনুমতি তার থাকে।

“তিন তালাক” ও “নিকাহ হলাল/হিল্লা বিয়ে”, এই উভয় প্রথার বিরুদ্ধেই ৯০ দিন আগে একটি পিটিশন জারি করেছে ভারতীয় মুসলিম নারী আন্দোলন।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, জের, ০২.০৬.২০১৬


Comments are closed.