>> কুমিল্লা বিক্টোরিয়ান্সকে হারিয়ে রংপুর রাইডার্স বিপিএল ফাইনালে >> হবিগঞ্জে ৫ জেএমবি সদস্য আটক

সবার শুভ বুদ্ধি উদয় হোক ক্রিকেট ফিরে আসুক সমহিমায়

শরীফ এ. কাফী

Sharif A Kafi 3দলকানা কোলটানা লোকেরা খুবই বিপজ্জনক! এরা প্রায়শ খুবই উগ্র এবং প্রতিহিংসাপরায়ন হয়। এদের কেউ কেউ সাম্প্রদায়িক হওয়ারও প্রবণতা থাকে। ধারাভাষ্যকার সঞ্জয় মাঞ্জরেকার এতদিন একটা বুদ্ধিজীবী ভাবপ্রকাশ করে আসছিলেন। সেই তিনিই কিনা বললেন, “ধোনির কোন দোষই নেই, বোলার দুই দুইবার তার পথ আগলে দাঁড়িয়েছে”। যারা সেদিনের সে ফুটেজ দেখেছেন, সবাই দেখেছেন জীবনে প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে আসা মুস্তাফিজ যেটা করেছে সেটা খানিক উদাসীনতা আর খানিক অনভিজ্ঞতা। আর ধোনি? তাঁর মত একজন ক্রিকেট ব্যাক্তিত্ব কী করলেন? সবাই অবাক হয়ে দেখলো তার কাছে যেটা প্রত্যাশিত নয় তিনি সেটাই করে বসলেন!

আর সৌরভ গাঙ্গুলী? তিনি কী বললেন? আনন্দবাজার পত্রিকায় প্রকাশিত খবরে সৌরভকে কোট করা হয়েছে, ‘‘ধোনি মোটেই ইচ্ছে করে ধাক্কা মারেনি। টিভিতে ঘটনাটার রিপ্লে দেখে মনে হয়নি দু’জনের কেউই এটা ইচ্ছে করে ঘটিয়েছে। এমনিতেই ধোনি রান নিতে গিয়ে খুব জোরে ছোটে। বলটা ও মিড অফে মেরেছিল। চোখ সে দিকেই ছিল। বোলারও সে দিকেই যেতে চাইছিল। বড়সড় কোনও ধাক্কা এড়ানোর জন্য ওকে সরাতে গিয়েছিল। ওখানে ওকে ইচ্ছে করে আঘাত করতে যাবে কেন?’’

জানা গেছে, “মুস্তাফিজকে শাস্তি না দিয়ে ধোনিকে শাস্তি দেয়া যাবেনা” – এ রকম একটি আগাম ঘোষণা দিয়ে ক্রিকেট পরাশক্তি ভারতের প্রতিনিধি রবি শাস্ত্রী ম্যাচ রেফারী পাইক্রফটের উপর চাপ সৃষ্টি করায় তিনি ভারসাম্য রক্ষা করতেই ধোনির পাশাপাশি মুস্তাফিজকেও জরিমানা করেছেন।

এইসব দলকানা বক্তব্য, পক্ষপাতমূলক আচরণ ও কথিত ধারা ভাষ্যকারদের উস্কানীর জন্য ভারতীয় ক্রিকেট আজ তার মহত্ব হারাতে বসেছে। সেদিন ম্যাচ হেরে ভারতীয় দল ডিনার না করেই ষ্টেডিয়াম থেকে বেরিয়ে গেল। এটা কী ভদ্রলোকের খেলা ক্রিকেটকে গৌরবান্বিত করেছে? তাঁরা হোটেলে গিয়েও রাতে ডিনার করেন নি। সেটাও কী ছেলেমানুষী আবেগ নয়?

ভারতের ক্রিকেটকে আমরা আরও মহিমান্বিত দেখতে চাই! আর সে জন্য সবার শুভ বুদ্ধি উদয় হোক! ক্রিকেট পক্ষপাতমুক্ত হোক। ক্রিকেট ফিরে আসুক সমহিমায়!

বাংলাদেশনিউজ
২১.০৬.২০১৫


Comments are closed.