>> এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর পাশের হার ৬৮.৯১

কক্সবাজার মেতেছে রাখাইন সম্প্রদায়ের সাংগ্রাই উৎসবে

মফস্বলডেস্ক, বাংলাদেশনিউজ

Cox Bazar Sangriঐতিহ্যবাহী সাংগ্রাই উৎসবে মেতে উঠেছে কক্সবাজারের রাখাইন সম্প্রদায়। এ উৎসবকে ঘিরে পর্যটন নগরী কক্সবাজারে এখন আনন্দমুখর পরিবেশ। শুক্রবার শুরু হওয়া তিন দিনব্যাপী এ উৎসব শেষ হবে আজ রোববার।

১৩শ’ ৭৭ রাখাইন বর্ষকে স্বাগত জানাতে বর্ণিল এ আয়োজন পরিণত হয়েছে নানা বর্ণ-ধর্মের মানুষের মিলন মেলায়।

কোন ধর্মীয় উৎসব নয় তবে সামাজিক রীতি অনুযায়ী, আনন্দমুখর পরিবেশে ধুমধামের সাথে বর্ণাঢ্য রাখাইন নববর্ষকে বরণ করা হয়। এ উপলক্ষে সবচেয়ে বড় আয়োজনটির নাম ‘জলকেলি’ উৎসব। যার রাখাইন নাম ‘সাংগ্রেং পোয়ে’। রাখাইন সম্প্রদায়ের লোকজনের মতে, এটি শুভ্র ও পবিত্র হওয়ার উৎসব।

তাই প্রতি বছরের মত এবারও চলছে বর্ণিল আয়োজনে তিন দিনব্যাপী এ জলকেলি উৎসব। যাকে ঘিরে কক্সবাজারের রাখাইন পল্লীতে তৈরি হয়েছে উৎসবের আমেজ। শুধু রাখাইন সম্প্রদায়ের মানুষই নয়, তাদের এই আয়োজনে স্থানীয় লোকজনরে পাশাপাশি পর্যটকদের পদভারে এখন মুখরিত পল্লী।

রাখাইন সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যকে ধরে রাখার জন্য এ ধরণের উৎসবে সরকারকে এগিয়ে আসা প্রয়োজন বলে জানালেন রাখাইন নেতা মং মে নাই।

Cox Bazar Sangri 2তিনি বলেন, ‘আগে যে আনন্দ ছিল সেই আনন্দ এখন আর নেই। এখন সবাই নীরব হয়ে ঘরের মধ্যে আনন্দ করছে। সরকারের কাছে আবেদন যেন আমাদের দিকে সরকার একটু নজর দেয়।’

এদিকে জলকেলি উৎসবের নিরাপত্তা যাতে বিঘ্নিত না হয় সে জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানায় পুলিশ। কক্সবাজার সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আব্দু শুক্কুর বলেন, ‘আমরা সার্বিক নিরাপত্তা দিচ্ছি কোনো সমস্যা নাই।’

জেলার বিভিন্ন স্থানে ৩০টি প্যান্ডেলে এ উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। এখানে প্রায় ২০ হাজার রাখাইন বসবাস করে।

bdn24x7.com, বাংলাদেশনিউজ, এসএস, জের, ১৯.০৪.২০১৫


Comments are closed.