>> ইরাক ও সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় নিহত আরও ৬১

শুভ নববর্ষ!

Shuvo Noboborsho 2বাংলা পঞ্জিকায় পুরনো জঞ্জাল সরিয়ে, পুরোন পাতা ঝরিয়ে, নতুন কুঁড়ি, নতুন পাতায়, নতুন খাতায় শুরু হলো ১৪২২ বাংলাবর্ষ। বর্ণিল আমেজে, রঙিন সাজে বাংলা নববর্ষের শুভ যাত্রায় শরীক হলো বাংলাদেশের মানুষ। নতুন পোশাকে, নতুন সাজে, পাহাড়ে-সমতলে, নেচে-গেয়ে, আনন্দ-উল্লাসে, মেলা-উৎসবে নতুন বছরের শুভযাত্রা করল বাঙালী। তবে শুধু বাংলাদেশের বাঙালীরা নয়, সারা পৃথিবীতে যেখানে যত বাঙালী আছে সবাই এই শুভ উৎসবের শুভ যাত্রায় মেতেছে।

পৃথিবীতে ইতিহাস এবং ঐতিহ্যের ধারক বড় বড় যে সব উৎসব তার প্রায় সবই ধর্ম ভিক্তিক বা ধর্মীয় অনুষ্ঠান। এর বাইরে কোন জনগোষ্ঠীর জাতীয়তা এবং কৃষ্টি-নির্ভর সার্বজনীন উৎসব প্রায় চোখেই পড়ে না। এক্ষেত্রে বাংলা এবং বাঙালী ব্যতিক্রম। আবহমান কাল থেকে প্রাণের আবেগে বাংলা নববর্ষ উদযাপন করে আসছে বাঙালী। আগে এদেশেও বৎসরান্তে বর্ষবিদায় এবং নববর্ষ বরণ করার উৎসব শুরু হতো বছরের শেষ দিন বা তার আগের দিন থেকে। কিন্তু সে উৎসবগুলো ছিল ধর্মভিক্তিক। যেমন, চৈত্রসংক্রান্তি, বেশাখী, বৈসাবী, বিজু, সাংগ্রাই, প্রভৃতি। কিন্তু এক সময় খাজনা আদায়, ব্যবসার নতুন খাতা খোলা এবং প্রজাদের মনোরঞ্জন ও ব্যবসার খদ্দের-লক্ষীদের আপ্যায়ণের একটি কালচার শুরু হয়। এর জন্য বিশেষভাবে বছরের প্রথম দিনটিকে বেছে নেয়া হয়। তখন থেকে বাংলা নববর্ষ উদযাপনের যাত্রা শুরু। আজ তা বাঙালীর ইতিহাস এবং ঐতিহ্যের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে বাংলা ভূ-খণ্ডের সকল অধিবাসী এই উৎসবের সমান অংশীদার। এ যেন মানুষে মানুষে প্রাণের খেলা, বন্ধুত্ব ও আত্মীয়তার মহামিলন।

পাকিস্তানী শাসন আমলে এই মেলাকে নিরুৎসাহিত করে, বাংলা নববর্ষ উদযাপন বন্ধ করে দেয়ার একটি চক্রান্ত হয়েছিল। কিন্তু পাকিস্তানীদের সেই অপচেষ্টা সফল হয়নি। এখনও এই স্বাধীন বাংলাদেশে কিছু অপশক্তি আছে যারা বাঙালীর এই ঐতিহ্যকে ম্লান করতে চায়। যশোরে উদীচির অনুষ্ঠানে বোমা হামলা, রমনা বটমূলে বোমা হামলা এবং নেত্রকোনায় বোমা হামলাসহ আরও অনেক ঘটনা তার প্রমাণ। কিন্তু বাঙালী জাতি কখনো কোন অপশক্তির কছে মাথা নত করেনি। এবারও বাংলা নববর্ষে ছোট শিশু থেকে শুরু করে খুন-খুনে বৃদ্ধ-বৃদ্ধা পর্যন্ত আপামর জনসাধারণের গৌরবময় ঐতিহ্যের পদচারণায় জানান দিয়ে যাচ্ছে, বাঙালীর রক্তে মিশে থাকা তার ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং কৃষ্টি কোন দিন মুছে ফেলা যাবে না। এ ঐতিহ্যের রথে চড়ে দারিদ্র্য এ অপশক্তিকে পরাভূত করে বিশ্ব জয়ে এগিয়ে যাবে বাঙালী।

শুভ নববর্ষ! শুভ নববর্ষ! শুভ নববর্ষ!

বাংলাদেশনিউজ
১৪.০৪.২০১৫


Comments are closed.