>> ইরাক ও সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় নিহত আরও ৬১

বিজেপি বাংলাদেশ ইসলাম এবং ভারতীয় মুসলিম

ইনামুল হাফিজ লতিফী

Enamul Hafiz Latifeeভারতের বিজেপি এর কিছু সাংসদ সদস্য এর ফেইসবুক ফলোয়ার আমি অনেকদিন ধরেই, স্বাভাবিকভাবেই জানার আগ্রহ ছিল নতুন সরকারের আচরণ কেমন হয়। তো প্রতিদিন নিউজ ফিডে আসছে একেকজনের একেক কথা, প্রতিদিনই এদের টিম নিয়ম করে বাংলাদেশ, ইসলাম, ফিলিস্তিন, কাশ্মীর, ভারতীয় মুসলিম নিয়ে পোস্ট দেয় এবং বলার অপেক্ষা রাখে না সবগুলোতেই তারা উপরে বলা স্বত্তাগুলোর উপর খুব গরম-গরম মিথ্যাচার করে। এর সারাংশগুলো এরকম,

১) তাদের মতে গত ৫-৬ বছরে ১ কোটি বাংলাদেশি ভারতে চলে গেছে এবং তারা না কি ভারতকে ইরাক, আফগানিস্তান, বসনিয়া বানানোর পরিকল্পনা করছে। অথচ স্মাগলিং হয়ে মাদকদ্রব্য কোত্থেকে আসে, তার কোন কথা নেই, এদেশ থেকে নারী-শিশু পাচার করা হয় কোন দেশে তার কোন উল্লেখ নাই, এই দেশের প্রত্ন-সম্পদ কারা চুরি করে তার কোন উল্লেখ নাই।

২) বিজেপি এর অনুসারীরা বলে চলেছে, ইসলাম-ই না কি অশান্তির মূল এই পৃথিবীতে, স্বাভাবিকভাবেই নেতারা যা প্রচার করে অনুসারীরা তাই বলে, এক্ষেত্রেও তার ব্যাতিক্রম নয়। তারা প্রচার করছে, হিন্দু সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ ভারতে না কি হিন্দুরাই সংখ্যালঘুর মতো জীবন-যাপন করছে, যার কারণ না কি মুসলিমরা। অথচ দাঙ্গা এই মোদী বাহিনীই লাগিয়েছিল, এমনকি এখনো চাচ্ছে তারা মুসলিমদের উপর যে কোন একটা ইস্যু তৈরি করে গণহারে আক্রমণ করে হত্যা করতে মিয়ানমারের মতো।

৩) ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের যে আগ্রাসন চলছে তা না কি সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের যুদ্ধ, ভারত-সরকারের না কি উচিত সার্বিক সমর্থন নিয়ে ইসরায়েলের পাশে দাঁড়ানো। তাহলে এই যে জাতিসংঘের কর্মকর্তা ফিলিস্তিনিদের কথা বর্ণনা করতে গিয়ে কেঁদে দিলেন, তার মানে কি? এই যে এমনকি, ইসরায়েলের অধ্যাপক এবং সেখানকার কিছু ইহুদিরাই বলছে, ইসরায়েল বাড়াবাড়ি করে ফেলছে এবং এসব এখনই বন্ধ করা উচিত, নাহলে ইসরায়েলই প্রকৃত সন্ত্রাসী-রাষ্ট্র হিসেবে আখ্যা পাবে, এটা কি?

৪) কাশ্মীর নিয়েও তারা অনেক কিছু বলে, কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামীদের তারা ইসলামিক জঙ্গি বলে! দেশের স্বাধীনতা আর ইসলামের সম্পর্ক কোথায় তা আমার বোঝার বাইরে।
৫) এই সেদিন একজন সাংসদ পোস্ট দিলেন, ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রতিবছর হাজার হাজার গরু পাচার হয়, ঊনি প্রশ্ন রেখেছেন এই যে এভাবে সে দেশ থেকে গরু নিয়ে বাংলাদেশিরা এবং এদেশের মুসলিমরা গরু হত্যা করে, তা কি ঠিক কি না। সেখানে ভারতীয় অনেক মুসলিমকে দেখলাম, নিজের চামড়া বাঁচানোর জন্য বলছে যে এটা ঠিক না, এই হচ্ছে অবস্থা। আমার ধর্ম আমাকে যা হালাল করে দিয়েছে, ভারতের এই উগ্রবাদী সরকার তা হারাম ক্রএ দিয়েছে, তাদের মনোভাব এমন যে পারলে বাংলাদেশে ঢুকে গণহারে বাংলাদেশি মুসলিমকে জবাই করে যাবে, গরু হত্যার দায়ে। আমি অবাক হই, এরা কতোটা জ্ঞাণ-পাপী হলে তুলে ধরতে পারে যে, মানুষ নয়, মুসলিম নয়, বরং একটা প্রাণী- গরুও এর চেয়ে অনেক বেশি মূল্যবান এবং শ্রদ্ধেয়।

উপরের কথাগুলো আপনার বিশ্বাস নাও হতে পারে, যদি না হয় তবে এখনই ঘুরে আসুন এই লিংকটি, http://shankhnaad.net/

যার ওয়েব পোর্টাল এটি, তিনি আবার যে কেউ নন, তার পিএইচডি থিসিস্ করা নোবেলজয়ী অর্থনিতীবিদ সাইমন ক্যুযনেট এর অধীনে, তাই তিনি না জেনে বলে যাচ্ছেন এসব, এটাও বলা যায় না, যেহেতু ঊনি বিদ্বান তাই ঊনি এগুলো জেনে-শুনে এবং কোন প্রোপাগান্ডা বাস্তবায়ননের জন্যই বলছেন, করছেন। আবার এই মানুষটি আরেক নোবেলজয়ী ড. অমর্ত্য সেন এর ঘনিষ্টজন, যে অমর্ত্য সেনকে বাংলাদেশে আনা হয়, বাংলাদেশের সাফল্যগাঁথা বাংলাদেশিদের শুনানোর জন্য (সম্ভবত বাংলাদেশে বিশ্বমানের অর্থনীতিবিদের অভাব ছিল এবং আছে!)।

তো দেখুন এরা কতোটা বিদ্বেষী আপনার দেশ, জাতি এবং ধর্ম নিয়ে। অথচ এদেশের ডান-বাম, সুশীল এবং সামগ্রিক মিডিয়া মোদী সরকারের প্রশংসায় প্রতিনিয়ত মত্ত। আমি কারও সততা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে চাই না, শুধু বলতে চাই আমাদের রাজনীতিবিদ এবং সেইসব মিডিয়াকে, আপনি হয়তো অন্ধ, কিন্তু দয়া করে সাধারণ মানুষকে অন্ধ করে রাখবেন না, বিপদ যখন আমাদের উপর আসবে তখন তা আপনাকেও কিন্তু ধরে ফেলবে, একেবারে ছিঁড়ে-কাঁমড়ে খেয়ে ফেলবে।

লেখকঃ শিক্ষানবিশ, অর্থনিতী বিভাগ, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

বাংলাদেশনিউজ২৪x৭.কম
০৪.০৮.২০১৪


Comments are closed.