>> বরগুণায় সাগরে ট্রলার ডুবি ৪ জেলে উদ্ধার ৪ জন নিখোঁজ >> টেষ্ট অধিনায়কত্ব হারালেন মুশফিকুর রহিম >> নতুন টেষ্ট অধিনায়ক সাকিব আল-হাসান সহ-অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ

প্রেসবিজ্ঞপ্তি : গণজাগরণ মঞ্চ

প্রেসবিজ্ঞপ্তি
০৩ জুলাই ২০১৪

যুদ্ধাপরাধীদের দ্রুত বিচার ও জামাত-শিবির নিষিদ্ধে করণীয় বিষয়ে মতবিনিময় সভা

Gonojagoron Mancha logoগণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলন সবার ঐক্যবদ্ধ প্রয়াসেই কাদের মোল্লার ফাঁসীর দাবিতেই সবাই শাহবাগে সমবেত হয়েছিল। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধে দেশে-বিদেশে চক্রান্ত চলছে এমনকি গণজাগরণ মঞের নাম ভাঙ্গিয়েও চলছে ষড়যন্ত্র। বর্তমান সরকার বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই বিচার কার্য নিষ্পন্ন করার ব্যাপারে বদ্ধপরিকর থাকা সত্ত্বেও গণজাগরণ মঞ্চকে ব্যবহার করে কোন কোন মহল থেকে তাঁরই এই প্রত্যয়কে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্ঠা হচ্ছে। আমরা বিশ্বাস করি শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারই এই বিচার কাজ সম্পন্ন করতে পারে, অন্য কোন দল তা করবে না। কেননা অন্য যেসব বিরোধী দল ক্ষমতায় যেতে চায় এ ব্যাপারে তাদের কোন প্রকার ইচ্ছাতো নেই-ই বরং যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে এবং বিচার কার্যক্রম বানচাল করতেই তারা তৎপর।

তবে এই সরকারের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী লোকজনকে চিহ্নিত করে ও বিচার কার্য অব্যাহত রাখার কাজে সহায়ক হিসেবে গণজাগরণ মঞ্চ আগামীতে বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করবে। সকল চক্রান্তের বিরুদ্ধে গণজাগরণ মঞ্চ সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও জামাত শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধের ব্যাপারে আন্দোলন অব্যাহত রাখবে।
এ লক্ষে সরকারকে ও তরুণ প্রজন্মের এ আন্দোলনকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী দেশের জনগণ মূল্যায়ণ করবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। গণজাগরণ মঞ্চ কারো একক নেতৃত্বে তৈরী হয় নাই। তাই গণজাগরণ মঞ্চের মূল দাবির সাথে একমত পোষণ করে, সহায়ক ভূমিকা হিসেবে গণজাগরণ মঞ্চ সবার চেতনাকে বাস্তবায়ন করবে। এজন্য মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী বিশেষ করে তরুণ প্রজন্ম বঙ্গবন্ধুর চেতনা ও আদর্শ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে গণজাগরণ মঞ্চের মূল দাবীর সাথে একমত পোষণ করে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবে।

মতবিনিময় সভায় যারা উপস্থিত ছিলেন তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমত কাদির গামা (ভাইস প্রেসিডেন্ট, মুক্তিযুদ্ধ কেন্দ্রীয় সংসদ), বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন হাবিব, (সেক্টর কমান্ডার ফোরাম), পীযুষ বন্দোপাধ্যায় (সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব), মাওঃ ফরিদ উদ্দিন মাসুদ (ইমাম সোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দান), গোলাম ক্দ্দুুস (বিশিষ্ট সংস্কৃতি ব্যক্তিত্ব), শ্যামল দত্ত (সম্পাদক ভোরের কাগজ), শিল্পী মনোরঞ্জন ঘোষাল (শব্দ সৈনিক স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র), শিল্পী মনিরুজ্জামান (বিশিষ্ট চিত্র শিল্পী), মুক্তিযোদ্ধার সন্তান শাহিন রেজা নুর (সভাপতি প্রজন্ম ৭১ ও নির্বাহী সম্পাদক ইত্তেফাক), মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন (সহ-সভাপতি চেতনা বাস্তবায়ন মঞ্চ), মাওঃ দেলোয়ার হোসেন সাঈফী (খতিব আই পি এস জামে মসজিদ), জহির উদ্দিন জালাল ওরফে বিচ্ছু জালাল (ট্রাইব্যুনালে মানবতা বিরোধী অপরাধ মামলার স্বাক্ষী)।

এছাড়া গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মোঃ হাবিবুল্লাহ মিছবাহ্, (সংগঠক গণজাগরণ মঞ্চ ও যুগ্ম আহ্বায়ক জাগ্রত জনতা, এফএম শাহিন (সংগঠক গণজাগরণ মঞ্চ), ব্লগার ও সাংবাদিক কবীর চৌধুরী তন্ময় (সংগঠক গণজাগরণ মঞ্চ), আজাদ আবুল কালাম, (সভাপতি-গৌরব’৭১), মুখলেছুর রহমান মুকুল, (সাবেক ছাত্রনেতা), রাশিদা হক কনিকা,  (সেক্টর কমান্ডার সদস্য)।

মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, সমাজের বিভিন্ন স্তরের জনগন, ছাত্র-শিক্ষক, সাংবাদিক, কবি, সাহিত্যিক এবং গণ জাগরণ মঞ্চের কর্মী-সমর্থক বৃন্দ।

সভায় সঞ্চালনার দায়িত্ব পালন করেন, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক কামাল পাশা চৌধুরী ও সমাপনী বক্তব্য দেন শাহিন রেজা নুর।

বার্তা প্রেরক,

মোঃ হাবিবুল্লাহ্ মিছবাহ
সংগঠক, গণজাগরণ মঞ্চ

বাংলাদেশনিউজ২৪x৭.কম
০৪.০৭.২০১৪


Comments are closed.